মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়.

উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন দপ্তর/অফিস সম্মূহের দাপ্তরিক কার্যসম্পাদনের নির্দেশনা প্রদান ও উন্নয়নমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা এবং জেলা প্রশাসক ও সচিবালয়ের নির্দেশ মোতাবেক উপজেলা পর্যায়ে প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনা করা। অত্রাফিসের প্রধান হচ্ছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

  • কী সেবা কীভাবে পাবেন
  • প্রদেয় সেবাসমুহের তালিকা
  • সিটিজেন চার্টার
  • সাধারণ তথ্য
  • সাংগঠনিক কাঠামো
  • কর্মকর্তাবৃন্দ
  • তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তা
  • কর্মচারীবৃন্দ
  • বিজ্ঞপ্তি
  • ডাউনলোড
  • আইন ও সার্কুলার
  • ফটোগ্যালারি
  • প্রকল্পসমূহ
  • যোগাযোগ

 

ক্রঃ নং

সেবার নাম

সেবা প্রদানের সময়সীমা

সেবা প্রদানের পদ্ধতি

সেবা প্রদানের স্থান

০১

কৃষি / অকৃষি খাস জমি বন্দোবস্ত, পেরীফেরীভূক্ত হাট-বাজার একসনা বন্দোবস্ত ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ভূমি সংক্রামত্ম বিষয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) হতে প্রাপ্তির পর ৩ (তিন) দিনের মধ্যে।

উপজেলা ভূমি অফিস হতে প্রসত্মাব প্রেরণের পর উপজেলা নির্বাহী অফিস হতেপ্রসত্মাবটি সুপারিশ সহকারে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কার্যালয়ে অগ্রবর্তী করাহয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও ভূমি মন্ত্রণালয়।

০২

ত্রাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রদত্ত বরাদ্ধে গৃহীত প্রকল্প     বাস্তবায়ন কার্যক্রম (টি.আর, কাবিখা, কাবিটা ও ত্রাণ সামগ্রী)।

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হতে প্রসত্মাব প্রাপ্তির পর ২ (দুই) দিনের মধ্যে।

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার নিকট থেকে প্রসত্মাব প্রাপ্তির পর সভায়সিদ্ধামত্ম গ্রহণ করতঃ জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কার্যালয়ে অনুমোদনের জন্যপ্রেরণ করা হয়।

প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়, জেলাপ্রশাসকের কার্যালয় ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস।

০৩

এল.জি.ই.ডি কর্তৃক গৃহীত ও বাস্তবায়িত প্রকল্প, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ঠিকাদারের বিল / প্রকল্প কমিটির সভাপতির বিল প্রদান।

উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় হতে প্রসত্মাব প্রাপ্তির পর ২ (দুই) দিনের মধ্যে।

উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় হতে প্রসত্মাব প্রাপ্তির পর বিল অনুমোদন, প্রয়োজনে সরেজমিনে পরিদর্শন।

উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস।

০৪

হাট-বাজার বাৎসরিক ইজারা প্রদান।

প্রতি বছরের ১লা বৈশাখের আনুমানিক ২ (দুই) মাস পূর্বে  কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।

হাট-বাজার নীতিমালা অনুযায়ী দরপত্র বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়।

০৫

জলমহাল ইজারা প্রদান।

প্রতি বছরের ১লা বৈশাখের আনুমানিক ২ (দুই) মাস পূর্বে  কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।

জলমহাল ইজারার নীতিমালা অনুযায়ী দরপত্র বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে।

উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয়, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয় ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়।

০৬

সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালনকারী বে-সরকারী কলেজ, হাই স্কুল ও মাদ্রাসারবেতন বিল প্রদান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিবিধ প্রশাসনিক কার্যাবলী।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে বেতন বিল প্রাপ্তির ২ (দুই) দিনের মধ্যে এবং যেকোন প্রশাসনিক কাজের প্রসত্মাব প্রাপ্তির ৭ (সাত) দিনের মধ্যে।

প্রতিষ্ঠান প্রধান কর্তৃক বিল দাখিলের  পর।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়।

০৭

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সদস্য, সদস্যাদের সরকারী অংশের সম্মানী ভাতা প্রদান এবং সচিব ও গ্রাম পুলিশদের বেতন ভাতা প্রদান।

সরকারী বরাদ্ধ প্রাপ্তির ৭ (সাত) দিনের মধ্যে।

সরকারী বরাদ্ধ প্রাপ্তির পর সম্মানী ভাতা বা  বেতন ভাতা ব্যাংক থেকে কালেকশান করে প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়।

০৮

ধর্ম মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, জেলা পরিষদ, সংস্থা / বিভাগ কর্তৃক বিবিধ অনুদান বিতরণ।

বরাদ্ধ প্রাপ্তির পর বিষয়টি সুফলভোগীকে অবহিত করা হয়। সুফলভোগী কর্তৃক  চাহিদা মোতাবেক কাগজ-পত্রাদি দাখিলের পর ৩ (তিন) দিনের মধ্যে অর্থ প্রদানকরা হয়।

সুফলভোগী কর্তৃক  চাহিদা মোতাবেক কাগজ-পত্রাদি দাখিলের পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক অর্থ প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে মন্ত্রণালয় / বিভাগ / সংস্থা।

০৯

জেনারেল সার্টিফিকেট মামলা।

বিধি মোতাবেক।

P.D.R. Act, 1913 অনুযায়ী।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়।

১০

মোবাইল কোর্ট পরিচালনা ও রিপোর্ট রিটার্ণ প্রেরণ।

প্রতি সপ্তাহে একদিন।

সরকারের আদেশ ও বিভিন্ন আইন মোতাবেক।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ১ম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট।

১১

হজ্বব্রত পালনের ফরম বিতরণ ও পরামর্শ প্রদান।

আবেদনের সাথে সাথে।

আবেদন মোতাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিস হতে ফরম, তথ্য ও পরামর্শ প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিস ও জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কার্যালয়।

১২

স্থানীয় সরকার ( ইউনিয়ন পরিষদ) সংক্রামত্ম পরামর্শ, তথ্য ও করণীয় সম্পর্কে সেবা প্রদান।

চাহিদা মোতাবেক স্বল্প সময়ে প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসে এসে পরামর্শ চাওয়া হলে পরামর্শ প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিস ও ইউপি চেয়ারম্যান।

১৩

বিভিন্ন কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন।

কমিটির সদস্য-সচিবের সাথে আলাপের মাধ্যমে সম্ভাব্য স্বল্প সময়ে।

সদস্য-সচিবের চাহিদা মাফিক।

বিভাগীয় কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

১৪

বি.সি.আই.সি / ভর্তুকি সারের প্রতিবেদন প্রেরণ।

আগমনী বার্তা প্রাপ্তির দিন।

সরেজমিনে পরিদর্শন পূর্বক।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

১৫

নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ সেল কমিটি।

অভিযোগ প্রাপ্তির ১০ (দশ) দিনের মধ্যে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কর্তৃক সংশি­ষ্ট পক্ষদ্বয়কে নোটিশ প্রদান করা হয়।

নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ সেল কমিটি কর্তৃক পক্ষদ্বয়ের শুনানী গ্রহণ শেষে নিস্পত্তি করা হয়।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

 এ ছাড়াও উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক উপজেলায় নিম্নোক্ত কার্যাবলী সম্পাদিত হয়ে থাকে। 

  • সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রম জোরদার করণ।
  • ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে পত্র যোগাযোগ।
  • প্রাকৃতিক দুর্যোগ, দুর্ভিক্ষ ও মহামারীর সময় ত্রাণ কাজে সহায়তা প্রদান।
  • আইন-শৃংখলা রক্ষায় প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান।
  • সরকারী কার্যক্রমের সহায়ক শক্তি হিসাবে দায়িত্ব পালন।
  • উপজেলা পর্যায়ে উন্নয়ন ও প্রশাসনিক কাজের তদারকিকরণ।
  • বিভাগীয় কর্মকর্তাদের সাথে সমন্বয়ের দায়িত্ব পালন।
  • মন্ত্রণালয়ের সকল নীতিমালা মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়ন।

 

দৌলতপুর উপজেলা কুষ্টিয়া জেলার অধীনে একটি উপজেলা। দৌলতপুর উপজেলার আয়তন ৪৬১ বর্গ কিলোমিটার। এর উত্তরে বাঘা ও লালপুর, দক্ষিণে গাংনী ও মিরপুর, পুর্বে ভেড়ামারা ও মিরপুর উপজেলা এবং পশ্চিমে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ। মাথাভাঙ্গা ও পদ্মা এই উপজেলার প্রধান নদী। এছাড়া হিসনা নামের আরো একটি নদী দৌলতপুর উপজেলার মাঝ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

১৯৮৩ সালে দৌলতপুর থানাকে উপজেলা হিসেবে ঘোষনা করা হয়। দৌলতপুর উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়ন, ১৬১টি মৌজা ও ২৪২টি গ্রাম রয়েছে।

দৌলতপুর উপজেলার শিক্ষিতের হার ২০.৫%; যার মধ্যে ২৫% পুরুষ ও ১৫.৭% মহিলা। এই উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগূলোর মধ্যে রয়েছেঃ মহাবিদ্যালয়ঃ ১১ টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ঃ ৪৫ টি, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ১০৫ টি, বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ৮২ টি, মাদ্রাসাঃ ৩৫টি, ভকেশনাল প্রশিক্ষন কেন্দ্রঃ ১ টি এবং এতিমখানাঃ ১ টি

কৃতী ব্যক্তিদের ভিতরে আছেনঃ

১। শাহ আজিজুর রহমানঃ বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। শাহ আজিজুর রহমান কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলাই জন্মগ্রহন করেন।

সিটিজেন চার্টার

ক্রঃ নং

সেবার নাম

সেবা প্রদানের সময়সীমা

সেবা প্রদানের পদ্ধতি

সেবা প্রদানের স্থান

০১

কৃষি / অকৃষি খাস জমি বন্দোবস্ত, পেরীফেরীভূক্ত হাট-বাজার একসনা বন্দোবস্ত ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ভূমি সংক্রামত্ম বিষয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) হতে প্রাপ্তির পর ৩ (তিন) দিনের মধ্যে।

উপজেলা ভূমি অফিস হতে প্রসত্মাব প্রেরণের পর উপজেলা নির্বাহী অফিস হতেপ্রসত্মাবটি সুপারিশ সহকারে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কার্যালয়ে অগ্রবর্তী করাহয়।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও ভূমি মন্ত্রণালয়।

০২

ত্রাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রদত্ত বরাদ্ধে গৃহীত প্রকল্প     বাস্তবায়ন কার্যক্রম (টি.আর, কাবিখা, কাবিটা ও ত্রাণ সামগ্রী)।

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হতে প্রসত্মাব প্রাপ্তির পর ২ (দুই) দিনের মধ্যে।

প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার নিকট থেকে প্রসত্মাব প্রাপ্তির পর সভায়সিদ্ধামত্ম গ্রহণ করতঃ জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কার্যালয়ে অনুমোদনের জন্যপ্রেরণ করা হয়।

প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়, জেলাপ্রশাসকের কার্যালয় ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস।

০৩

এল.জি.ই.ডি কর্তৃক গৃহীত ও বাস্তবায়িত প্রকল্প, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ঠিকাদারের বিল / প্রকল্প কমিটির সভাপতির বিল প্রদান।

উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় হতে প্রসত্মাব প্রাপ্তির পর ২ (দুই) দিনের মধ্যে।

উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় হতে প্রসত্মাব প্রাপ্তির পর বিল অনুমোদন, প্রয়োজনে সরেজমিনে পরিদর্শন।

উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস।

০৪

হাট-বাজার বাৎসরিক ইজারা প্রদান।

প্রতি বছরের ১লা বৈশাখের আনুমানিক ২ (দুই) মাস পূর্বে  কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।

হাট-বাজার নীতিমালা অনুযায়ী দরপত্র বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়।

০৫

জলমহাল ইজারা প্রদান।

প্রতি বছরের ১লা বৈশাখের আনুমানিক ২ (দুই) মাস পূর্বে  কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।

জলমহাল ইজারার নীতিমালা অনুযায়ী দরপত্র বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে।

উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার কার্যালয়, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয় ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়।

০৬

সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালনকারী বে-সরকারী কলেজ, হাই স্কুল ও মাদ্রাসারবেতন বিল প্রদান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিবিধ প্রশাসনিক কার্যাবলী।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে বেতন বিল প্রাপ্তির ২ (দুই) দিনের মধ্যে এবং যেকোন প্রশাসনিক কাজের প্রসত্মাব প্রাপ্তির ৭ (সাত) দিনের মধ্যে।

প্রতিষ্ঠান প্রধান কর্তৃক বিল দাখিলের  পর।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়।

০৭

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সদস্য, সদস্যাদের সরকারী অংশের সম্মানী ভাতা প্রদান এবং সচিব ও গ্রাম পুলিশদের বেতন ভাতা প্রদান।

সরকারী বরাদ্ধ প্রাপ্তির ৭ (সাত) দিনের মধ্যে।

সরকারী বরাদ্ধ প্রাপ্তির পর সম্মানী ভাতা বা  বেতন ভাতা ব্যাংক থেকে কালেকশান করে প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়।

০৮

ধর্ম মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, জেলা পরিষদ, সংস্থা / বিভাগ কর্তৃক বিবিধ অনুদান বিতরণ।

বরাদ্ধ প্রাপ্তির পর বিষয়টি সুফলভোগীকে অবহিত করা হয়। সুফলভোগী কর্তৃক  চাহিদা মোতাবেক কাগজ-পত্রাদি দাখিলের পর ৩ (তিন) দিনের মধ্যে অর্থ প্রদানকরা হয়।

সুফলভোগী কর্তৃক  চাহিদা মোতাবেক কাগজ-পত্রাদি দাখিলের পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক অর্থ প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে মন্ত্রণালয় / বিভাগ / সংস্থা।

০৯

জেনারেল সার্টিফিকেট মামলা।

বিধি মোতাবেক।

P.D.R. Act, 1913 অনুযায়ী।

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়।

১০

মোবাইল কোর্ট পরিচালনা ও রিপোর্ট রিটার্ণ প্রেরণ।

প্রতি সপ্তাহে একদিন।

সরকারের আদেশ ও বিভিন্ন আইন মোতাবেক।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ১ম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট।

১১

হজ্বব্রত পালনের ফরম বিতরণ ও পরামর্শ প্রদান।

আবেদনের সাথে সাথে।

আবেদন মোতাবেক উপজেলা নির্বাহী অফিস হতে ফরম, তথ্য ও পরামর্শ প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিস ও জেলা প্রশাসক মহোদয়ের কার্যালয়।

১২

স্থানীয় সরকার ( ইউনিয়ন পরিষদ) সংক্রামত্ম পরামর্শ, তথ্য ও করণীয় সম্পর্কে সেবা প্রদান।

চাহিদা মোতাবেক স্বল্প সময়ে প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসে এসে পরামর্শ চাওয়া হলে পরামর্শ প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিস ও ইউপি চেয়ারম্যান।

১৩

বিভিন্ন কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন।

কমিটির সদস্য-সচিবের সাথে আলাপের মাধ্যমে সম্ভাব্য স্বল্প সময়ে।

সদস্য-সচিবের চাহিদা মাফিক।

বিভাগীয় কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

১৪

বি.সি.আই.সি / ভর্তুকি সারের প্রতিবেদন প্রেরণ।

আগমনী বার্তা প্রাপ্তির দিন।

সরেজমিনে পরিদর্শন পূর্বক।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

১৫

নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ সেল কমিটি।

অভিযোগ প্রাপ্তির ১০ (দশ) দিনের মধ্যে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কর্তৃক সংশি­ষ্ট পক্ষদ্বয়কে নোটিশ প্রদান করা হয়।

নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ সেল কমিটি কর্তৃক পক্ষদ্বয়ের শুনানী গ্রহণ শেষে নিস্পত্তি করা হয়।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

 এ ছাড়াও উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক উপজেলায় নিম্নোক্ত কার্যাবলী সম্পাদিত হয়ে থাকে। 

  • সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কার্যক্রম জোরদার করণ।
  • ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে পত্র যোগাযোগ।
  • প্রাকৃতিক দুর্যোগ, দুর্ভিক্ষ ও মহামারীর সময় ত্রাণ কাজে সহায়তা প্রদান।
  • আইন-শৃংখলা রক্ষায় প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান।
  • সরকারী কার্যক্রমের সহায়ক শক্তি হিসাবে দায়িত্ব পালন।
  • উপজেলা পর্যায়ে উন্নয়ন ও প্রশাসনিক কাজের তদারকিকরণ।
  • বিভাগীয় কর্মকর্তাদের সাথে সমন্বয়ের দায়িত্ব পালন।
  • মন্ত্রণালয়ের সকল নীতিমালা মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়ন।

ছবি নাম মোবাইল
মোঃ তৌফিকুর রহমান ০১৭১৫৪০৭৭৫২

ছবি নাম মোবাইল

এডিবি

এলজিডি

এলজিএসপি

কাবিখা

কাবিটা

জিআর

টিআর

অতি দারিদ্রদের জন্য কর্মসূচি

এছাড়াও আরো অনেক গুরুত্বপুর্ন প্রকল্প আছে।

দৌলতপুর উপজেলা কুষ্টিয়া জেলার অধীনে একটি উপজেলা। দৌলতপুর উপজেলার আয়তন ৪৬১ বর্গ কিলোমিটার। এর উত্তরে বাঘা ও লালপুর, দক্ষিণে গাংনী ও মিরপুর, পুর্বে ভেড়ামারা ও মিরপুর উপজেলা এবং পশ্চিমে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ। মাথাভাঙ্গা ও পদ্মা এই উপজেলার প্রধান নদী। এছাড়া হিসনা নামের আরো একটি নদী দৌলতপুর উপজেলার মাঝ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

১৯৮৩ সালে দৌলতপুর থানাকে উপজেলা হিসেবে ঘোষনা করা হয়। দৌলতপুর উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়ন, ১৬১টি মৌজা ও ২৪২টি গ্রাম রয়েছে।

দৌলতপুর উপজেলার শিক্ষিতের হার ২০.৫%; যার মধ্যে ২৫% পুরুষ ও ১৫.৭% মহিলা। এই উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগূলোর মধ্যে রয়েছেঃ মহাবিদ্যালয়ঃ ১১ টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ঃ ৪৫ টি, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ১০৫ টি, বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ৮২ টি, মাদ্রাসাঃ ৩৫টি, ভকেশনাল প্রশিক্ষন কেন্দ্রঃ ১ টি এবং এতিমখানাঃ ১ টি

কৃতী ব্যক্তিদের ভিতরে আছেনঃ

১। শাহ আজিজুর রহমানঃ বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। শাহ আজিজুর রহমান কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলাই জন্মগ্রহন করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়, দৌলতপুর,কুষ্টিয়া

ফোনঃ ০৭০২৩ - ৭৫২০১

email- unodaulatpurkushtia@mopa.gov.bd

মোবাইল নম্বরঃ ০১৭১৫৪০৭৭৫২

দৌলতপুর উপজেলা কুষ্টিয়া জেলার অধীনে একটি উপজেলা। দৌলতপুর উপজেলার আয়তন ৪৬১ বর্গ কিলোমিটার। এর উত্তরে বাঘা ও লালপুর, দক্ষিণে গাংনী ও মিরপুর, পুর্বে ভেড়ামারা ও মিরপুর উপজেলা এবং পশ্চিমে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ। মাথাভাঙ্গা ও পদ্মা এই উপজেলার প্রধান নদী। এছাড়া হিসনা নামের আরো একটি নদী দৌলতপুর উপজেলার মাঝ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

১৯৮৩ সালে দৌলতপুর থানাকে উপজেলা হিসেবে ঘোষনা করা হয়। দৌলতপুর উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়ন, ১৬১টি মৌজা ও ২৪২টি গ্রাম রয়েছে।

দৌলতপুর উপজেলার শিক্ষিতের হার ২০.৫%; যার মধ্যে ২৫% পুরুষ ও ১৫.৭% মহিলা। এই উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগূলোর মধ্যে রয়েছেঃ মহাবিদ্যালয়ঃ ১১ টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ঃ ৪৫ টি, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ১০৫ টি, বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ৮২ টি, মাদ্রাসাঃ ৩৫টি, ভকেশনাল প্রশিক্ষন কেন্দ্রঃ ১ টি এবং এতিমখানাঃ ১ টি

কৃতী ব্যক্তিদের ভিতরে আছেনঃ

১। শাহ আজিজুর রহমানঃ বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। শাহ আজিজুর রহমান কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলাই জন্মগ্রহন করেন।