মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

বন বিভাগ বাংলাদেশ

বন বিভাগ বাংলাদেশঃ

দৌলতপুর উপজেলায় সরকারী ভাবে নার্সারী অবস্থিত। এখানে কম মূল্যে বিভিন্ন প্রকার গাছের চারা পাওয়া যায়।

কার্যাবলী

 

 

  • বন অধিদপ্তর বনজসম্পদ উন্নয়ন ব্যবস্থাপনার সাথে জীববৈচিত্র্য ও Watershed ব্যবস্থাপনা ও সংরক্ষণ কাজে নিয়োজিত।
  • সরকারি বনাঞ্চলের তত্বাবধায়ক হিসাবে বনজসম্পদ ও বন্যপ্রাণী রক্ষা ও ব্যবস্থাপনার  সাথে বিভিন্ন আইন ও বিধি বিধানের প্রয়োগ করা।
  • বনের টেকসই ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মৌলিক চাহিদা পূরণে সহায়তা প্রদান।
  • বন ভিত্তিক কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র বিমোচন এবং গনমূখী বনায়ন কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশের প্রতিবেশ এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নে বনের ভূমিকা বৃদ্ধি করা।
  • জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণের লক্ষ্যে অবশিষ্ট প্রাকৃতিক আবাসস্থল রক্ষণাবেক্ষণ এবং অবক্ষয়িত বনাঞ্চলের পুণরুদ্ধার (Restoration)|
  • অংশীদারিত্ব ভিত্তিক বন ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করণ। সরকারি প্রান্তিক, নতুন জেগে উঠা ভূমি, খাস ভূমি এবং অশ্রেণীভূক্ত বনে দ্রুত বর্ধন ও উচ্চ ফলনশীল প্রজাতির গণমূখী বনায়ন কার্যক্রমের মাধ্যমে আনুভূমিক বৃক্ষাচ্ছাদন সম্প্রসারণ।
  • সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বনায়নের প্রতি সহায়তা ও উৎসাহ প্রদান। বৃক্ষরোপণ এবং কৃষি বনায়নের বিষয়ে কারিগরি উপদেশ ও সহায়তা প্রদান।
  • বিশ্ব উষ্ণায়ন নিয়ন্ত্রণ, মরুকরণ রোধ, বন, বন্যপ্রাণী, জীববৈচিত্র্য এবং পরিবেশ সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার জন্য সরকার কর্তৃক অনুস্বাক্ষরিত কনভেনশন, চুক্তি এবং প্রটোকল সমূহের প্রতিশ্রুতি পালনে সহায়তা প্রদান।
  • অবক্ষয়িত বন ও পরিত্যাক্ত ভূমি জনগণের অংশগ্রহণে পুনরুদ্ধার করা। 

 

যোগাযোগঃ মোঃ গোলাম কবীর

প্লান্টেশন মালি

মোবাইলঃ 01748971636

 

দৌলতপুর উপজেলা কুষ্টিয়া জেলার অধীনে একটি উপজেলা। দৌলতপুর উপজেলার আয়তন ৪৬১ বর্গ কিলোমিটার। এর উত্তরে বাঘা ও লালপুর, দক্ষিণে গাংনী ও মিরপুর, পুর্বে ভেড়ামারা ও মিরপুর উপজেলা এবং পশ্চিমে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ। মাথাভাঙ্গা ও পদ্মা এই উপজেলার প্রধান নদী। এছাড়া হিসনা নামের আরো একটি নদী দৌলতপুর উপজেলার মাঝ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

১৯৮৩ সালে দৌলতপুর থানাকে উপজেলা হিসেবে ঘোষনা করা হয়। দৌলতপুর উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়ন, ১৬১টি মৌজা ও ২৪২টি গ্রাম রয়েছে।

দৌলতপুর উপজেলার শিক্ষিতের হার ২০.৫%; যার মধ্যে ২৫% পুরুষ ও ১৫.৭% মহিলা। এই উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগূলোর মধ্যে রয়েছেঃ মহাবিদ্যালয়ঃ ১১ টি, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ঃ ৪৫ টি, সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ১০৫ টি, বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ ৮২ টি, মাদ্রাসাঃ ৩৫টি, ভকেশনাল প্রশিক্ষন কেন্দ্রঃ ১ টি এবং এতিমখানাঃ ১ টি

কৃতী ব্যক্তিদের ভিতরে আছেনঃ

১। শাহ আজিজুর রহমানঃ বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। শাহ আজিজুর রহমান কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর উপজেলাই জন্মগ্রহন করেন।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :
Facebook Twitter